ভারত-পাকিস্তান সিরিজ চান শোয়েব আখতার

খেলা ডেস্ক

12

করোনাভাইরাসে যখন আতঙ্কিত পুরো বিশ্ব এবং এই ভাইরাসের ফলে যখন, ঘরে থাকাই সবার জন্য বাধ্যতামূলক, তখন শোয়েব আখতারঃ ভারত-পাকিস্তান সিরিজের দাবি করলেন । করোনাভাইরাসের কারণে সাধারণ মানুষ যেভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে, তাদের সাহায্যে অর্থ সংগ্রহের জন্যই এই সিরিজটি আয়োজনের দাবি তুলেছেন পাকিস্তানের সাবেক এই স্পিড স্টার।

তিন ম্যাচ করে দুই দেশেই এই সিরিজ আয়োজনের প্রস্তাব দেন শোয়েব। তবে, তার এই প্রস্তাবে একটু ভিন্নতা আছে। শোয়েব তার প্রস্তাবে উল্লেখ করেন, সিরিজটি খেলা হবে শুধুমাত্র টিভি দর্শকদের জন্য। সেখান থেকেই যে অর্থ উপার্জন হবে, তা ব্যায় করতে হবে করোনায় ক্ষতিগ্রস্থ অসহায় মানুষদের জন্য।

শোয়েব আখতার বলেন, ‘এই ক্রাইসিস মুহূর্তে আমি প্রস্তাব করছি ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে সিরিজ আয়োজনের দুই দেশেই হবে সিরিজটি এবং প্রতিবার তিনটি করে ম্যাচ। আমার মনে হয়, দুই দেশের মানুষই এতে খুশি হবে, অখুশি হবে না কেউ।’

পরক্ষণেই তিনি বলেন, ‘যদি বিরাট কোহলি বিশাল এক সেঞ্চুরি করে বসেন, তাহলে আমরাও খুশি হবো । যদি বাবর আজম সেঞ্চুরি করে তাহলে ওরাও খুশি হবে। মাঠে যাই ঘটুক, এই ক্রান্তিকালে এমন একটি সিরিজ যদি আয়োজন করা যায়, তাহলে দুই দলই হবে এতে জয়ী।’

করোনাভাইরাসের কারণে দুই দেশই এখন রয়েছে লকডাউনের মধ্যে। এমন পরিস্থিতিতে এ ধরনের সিরিজ হয়তো লকডাউন শেষ হলে আয়োজন করা যাবে। কিন্তু শোয়েব আখতার চান, যতটা দ্রুত সম্ভব হবে, ততটা। কিন্তু সত্যই কতটা সম্ভব? লজিস্টিক সাপোর্ট কিভাবে, কে দেবে- এসব কিন্তু আলোচনা করেননি শোয়েব।

শোয়েব বলেন, ‘সবাই এখন ঘরেই বসে আছে। সুতরাং, এই সময়ে বিশাল পরিমাণে টিভি ভিউয়ারশিপ পাওয়া যাবে। সম্ভবত এখন সম্ভব হবে না। তবে, পরিস্থিতির উন্নতি ঘটতে শুরু করলে আয়োজন করা যেতে পারে। প্রয়োজনে কোনো নিরপেক্ষ ভেন্যুতে আয়োজন করা যেতে পারে। যেমন দুবাইতে। চার্টার্ড ফ্লাইটের ব্যবস্থা করে এই ম্যাচ আয়োজন করা যায়।’

শোয়েব আখতারের প্রস্তাব, ম্যাচগুলো আয়োজন হবে ক্লোজ ডোর স্টেডিয়ামে। তিনি বলেন, ‘এই সিরিজটি প্রচার হবে শুধুমাত্র টিভিতে। প্রতিটি ব্যক্তিই সিরিজটি দেখবে ঘরে বসে। অবশ্যই এমন একটি সিরিজ আয়োজন করা গেলে অবিশ্বাস্যরকমের টিভি দর্শক পাওয়া যাবে এতে। এবং এটাই হবে সম্ভবত প্রথমবার, যে দুই দেশই একে অপরের জন্য খেলবে। এই সিরিজ আয়োজন বাবদ যে আয় হবে তা করোনা মোকাবেলার জন্য দুই দেশের সরকারকে সমানভাবে ভাগ করে দেয়া হবে ’